সংক্ষিপ্ত বর্ণনা :

ডিটেনশন ক্লাস : প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে অবশ্যই প্রতিদিন বাড়ির পড়া ও লেখা সম্পন্ন করে বিদ্যালয়ে আসতে হবে। কোন বিষয়ের পড়া না পারলে বা বাড়ির লেখা লিখে না আনলে শ্রেণি শিক্ষক সতর্ক করবেন। তথাপি উন্নতি পরিলক্ষিত না হলে সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীকে ছুটির পর ডিটেনশন ক্লাসে আটকে রেখে পড়া ও লেখা আদায় করা হবে।

Silica-Gel-3মাল্টিমিডিয়া শ্রেণি কক্ষ : বর্তমান যুগ তথ্য প্রযুক্তির যুগ। এই ধারণাকে সমৃদ্ধ এবং গবেষণাধর্মী করার জন্য মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুমের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর ফলে শিক্ষার্থী একদিকে যেমন আনন্দের সাথে শিক্ষাগ্রহণ করবে অন্যদিকে তাদের জীবনের সাথে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির সম্পৃক্ততা বাড়বে।

Thesis writing is difficult, but PhD dissertation help makes it less difficult for essay writing service its students by supplying them their thesis punctually.

বিজ্ঞানাগার : অত্র কলেজে বিজ্ঞান বিভাগের জন্য আধুনিক যন্ত্রপাতি সজ্জিত ও সমৃদ্ধ বিজ্ঞানাগার রয়েছে। সংশ্লিষ্ট বিষয়ের প্রভাষকমন্ডলী ও প্রদর্শকের প্রত্যক্ষতত্ত্বাবধানে পরীক্ষা কার্য সম্পাদন করা হয় এবং পাঠ্যক্রম অনুযায়ী ব্যবহারিক বিষয়ে পাঠদান করা হয়।

গ্রন্থাগার : জ্ঞানার্জন ও মেধা বিকাশে লাইব্রেরি/গ্রন্থগার যথেষ্ট ভূমিকা রাখে। আর এ লক্ষ্যেই গড়ে তোলা হয়েছে একটি লাইব্রেরি। ছাত্র-ছাত্রী ওপ্রভাষকমন্ডলীর চাহিদা পূরণের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণ বই ছাড়াও বিভিন্ন গবেষণামূলক ও মননধর্মী বই রয়েছে। শিক্ষার্থীরা প্রয়োজনেএখানে বসে পড়াশোনা করতে পারে।

কম্পিউটার ল্যাব : একুশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে তথ্য ও প্রযুক্তিগত উৎকর্ষের এই যুগে ছাত্র-ছাত্রীদের বিশ্বের সাথেতাল মিলিয়ে কম্পিউটার শিক্ষায় শিক্ষিত করে তোলার জন্য অত্র কলেজে রয়েছে একটি অত্যাধুনিক কম্পিউটার ল্যাব। অভিজ্ঞ ওপ্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কম্পিউটার প্রভাষক দ্বারা কম্পিউটার বিষয়ে অধ্যয়নরত ছাত্র-ছাত্রীদের যতেœর সাথে তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক ক্লাস করানোর ব্যবস্থা।

 

বৈশিষ্ট্য:

  • ১জন গাইড শিক্ষকের অধীনে ১৬জন শিক্ষার্থীকে সার্বক্ষণিক নিবিড়ভাবে তত্ত্বাবধান করা হয়। এছাড়াও প্রত্যেক শ্রেণির জন্য ১জন শ্রেণি শিক্ষক রয়েছেন।
  • অমনোযোগী শিক্ষার্থীকে কাউন্সিলিং প্রদান।
  • ভাল ফলাফলের লক্ষ্যে প্রতি ক্লাসে ব্যাচ গঠন করে প্রতিযোগিতামূলক পাঠদান করা হয়।
  • বিষয়ভিত্তিক অভিজ্ঞ শিক্ষক দ্বারা পাঠদান।
  • শ্রেণি কক্ষেই পাঠ বুঝিয়ে দেয়া হয় যাতে প্রাইভেট টিউটর দরকার না হয়।
  • একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি নৈতিক শিক্ষা প্রদান করা হয় যাতে শিক্ষার্থীরা অভিষ্ট লক্ষ্যে পৌছতে পারে।
  • ইংরেজি ও গণিতে বিশেষ পরিচর্যার ব্যবস্থা।শ    আধুনিক বিশ্বের সাথে তালমিলিয়ে শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ জীবন গঠনের পরামর্শ এবং পরিকল্পনা প্রদান করা হয়।